কাজ না মেলায় রিষড়া ওয়েলিংটন জুটমিলে শ্রমিক অসন্তোষ

Rate this post

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ : উৎসবের আবহের মধ্যেই হুগলির রিষড়া ওয়েলিংটন জুটমিলে শ্রমিক অসন্তোষ। ভাঙচুর করা হল মিলের অফিস, ম্যানেজারের কোয়ার্টার। উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় শ্রীরামপুর থানার পুলিশ। শনিবার সকালে মিলে কাজে যোগ দিতে এসেছিলেন শ্রমিকরা।জুটমিলের কয়েকটি বিভাগে কাজ হলেও সব শ্রমিক কাজ পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ করেন শ্রমিকরা।

এই অসন্তোষ থেকেই উত্তেজনা তৈরি হয়। আসবাবপত্র, অফিসের সামনে থাকা গাড়িতে ভাঙচুর কর হয় বলে অভিযোগ। গত ফেব্রুয়ারি মাসে ওয়েলিংটন জুটমিলে সাসপেনশন অফ ওয়ার্কের নোটিশ ঝুলেছিল। বেশ কয়েকবার বৈঠকের পর অক্টোবর মাসে শ্রমমন্ত্রী বেচারাম মান্নার হস্তক্ষেপে মিল খোলে। মিলে মেনটেনেন্সের কাজ চলার পর অক্টোবরের ১০ তারিখ থেকে উৎপাদন শুরু হয়।ধাপে ধাপে সব শ্রমিককে কাজ দেওয়া হবে বলে নোটিশও দেয় মিল কর্তৃপক্ষ।প্রায় এক মাস হয়ে গেলেও সব শ্রমিক কাজ না পাওয়ায় অসন্তোষ দানা বাঁধে।

শনিবার সকালে মিলে গিয়ে কাজ না পাওয়ায় তারই বহিঃপ্রকাশ ঘটে। মিলের নিরাপত্তারক্ষী রঘুনন্দন প্রসাদ গুপ্তা জানিয়েছেন, ‘শ্রমিকরা এসে ম্যানেজারকে খুঁজল।ম্যানেজার তখন ছিলেন না।তাঁকে না পেয়ে আমকে মারধর করল, জিনিসপত্র ভাঙচুর করল।’ শ্রমিক মহঃ জাভেদের অভিযোগ, ‘ম্যানেজার আজ কাজ দেবো, কাল দেবো বলে ঘোরায়। শনিবার সকালেও কাজে যোগ দিতে গেলে কাজ মেলেনি। বলা হয়েছিল ১৮ তারিখ থেকে মিল পুরো চলবে, তা হয়নি। আমরা চাই সবাইকে কাজ দেওয়া হোক।’ উত্তেজনা থাকায় মিলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

Next Post

দুর্ঘটনায় জখম জামালপুর থানার ওসি, সাব ইন্সপেক্টর

Sun Nov 7 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: বর্ডার লাগোয়া থানা বলে নজরদারির দায়িত্ব একটু বেশি থাকে। বর্ডার দিয়ে কিছু পাচার হচ্ছে কি না সব সময় নজর রাখতে হয়। সেই কারণে প্রায় পেট্রোলিং করতে দেখা যায় পূর্ব বর্ধমান থানার ওসি সহ বিভিন্ন পুলিশ কর্মীদের। শনিবার দুপুরে গুরাপ এবং পূর্ব বর্ধমানের […]

আপনার পছন্দের সংবাদ