এই ঐতিহ্যবাহী ২২ ফুটের কালী পুজো চলছে ১০০ বছর থেকে

জন দেখেছেন : 39
0 0
পড়তে সময় লাগবে :2 মিনিট, 17 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: নৈহাটির বড়মা ধর্ম হোক যার যার বড়মা সবার “”এই কথাটি প্রচলিত নৈহাটির এই বড়মা কালী পুজোয়। মুকুট ছাড়া 22 ফুট এর উচ্চতা। গত আট বছর ধরে শিল্পী শুভেন্দু সরকার মায়ের এই সুবিশাল প্রতিমা গড়ে এসেছেন। ঐতিহ্যবাহী এই পুজো সম্পর্কে চলুন জেনেনেই।

আনুমানিক 100 বছর ধরে চলে আসছে নৈহাটি বড়মার পুজো। নৈহাটির অরবিন্দ রোডে এই পুজো হয়। 2013 সালের এপ্রিল মাসে বড়মার মন্দিরের প্রতিষ্ঠা হয়। কথিত আছে 100 বছর আগে ভবেশ চক্রবর্তী নামে এক ব্যক্তি তার কয়েকজন বন্ধু নবদ্বীপে রাস দেখতে গিয়ে রাধাকৃষ্ণের যুগল মূর্তি দেখে মনস্থির করেন যে তারাও উঁচু মাতৃ প্রতিমা প্রতিষ্ঠিত করে কালী পুজো শুরু করবেন। প্রথম 21 ফুট কালী মূর্তি পুজো শুরু করা হয়, তখনই পুজোর ভাবেশ কালী নামে পরিচিত ছিল।

পরবর্তীতে এই কালি উচ্চতার কারণে বড় মা কালী নামে পরিচিত হয়, এখন সেই মূর্তির উচ্চতা 22 ফুট। কোজাগরী লক্ষ্মী পূজার দিন এখানে কাঠামো পুজো হয় তারপরের 15 দিনের মধ্যেই এই প্রতিমা তৈরি করা হয়। কুটির জমিনে বৈষ্ণব মতে এখানে পুজো হয় তাই এখানে কোন বলিদানের রীতি নেই। পুজো কমিটির কথা অনুযায়ী জানা যায় যে এই মুহূর্তে মায়ের মোট 100 ভরি সোনার গহনা এবং 200 ভরি রুপোর গয়না রয়েছে। পুজোর দিন সমস্ত গহনা মাকে পরানো হলেও বিসর্জনের দিন সেই সমস্ত গহনা খুলে নিয়ে প্রতিমা জুড়ে ফুলের গহনা দিয়ে সাজানো হয়। এবং তার পরের ট্রলি করে গঙ্গায় বিসর্জন করা হয়

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রবিরঞ্জন চট্টোপাধ্যায়ের জীবনাবসান, মুখ্যমন্ত্রীর শোকপ্রকাশ

Wed Nov 3 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ : প্রয়াত হলেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রবিরঞ্জন চট্টোপাধ্যায়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে প্রয়াত হন তিনি। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। বর্ধমান দক্ষিণ কেন্দ্রের তৃণমূলের বিধায়ক ছিলেন তিনি। ২০১১ সালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রথম সরকারের মন্ত্রীসভার সদস্য ছিলেন তিনি। সামলেছেন কারিগরি […]