মোবাইলে গেমের নেশা প্রাণ কাড়ল যুবকের

জন দেখেছেন : 22
0 0
পড়তে সময় লাগবে :2 মিনিট, 45 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: স্মার্ট ফোন আসার পর থেকে যুব সমাজের একটা বড় অংশ আসক্ত হয়ে পড়ছে অনলাইন গেমের প্রতি। প্রায় চোখে পড়ে রাস্তার মোড়ে হোক বা চায়ের দোকানে বা ঘরের কোনে, যুব সম্প্রদায় মোবাইল ফোন নিয়ে গেম খেলতে ব্যস্ত। কারও সাথে কথা তো বলেই না, এমনকি খাওয়া-দাওয়া পর্যন্ত ছেড়ে দেয়।

সেই নেশায় আসক্ত হয়েই এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ি জেলার রাজগঞ্জে। যুবকের নাম আব্দুল সাত্তার। বয়স ১৯ বছর। তার বাড়ি রাজগঞ্জের ফুলবাড়ি ২ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের বদলাগাছে। মঙ্গলবার সকালে তার ঘর থেকে ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান তার পরিবারের লোকজন। খবর পাওয়া মাত্র ছুটে আসে রাজগঞ্জ থানার পুলিশ। মৃতদেহ উদ্ধার করে জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, আব্দুল সাত্তার সব সময় মোবাইলে গেম খেলত। সারাদিন কারও সাথে কথাও বলতো না। এমনকি খেতে বসেও গেম খেলত। বারবার বারণ করা সত্ত্বেও কোনও লাভ হয়নি। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল রাতেও খেতে খেতে গেম খেলছিল আব্দুল। খাওয়া শেষ করে ঘরে গিয়ে ঘুমিয়েও পড়ে।

সকালে উঠে ডাকাডাকি করলেও দরজা না খোলার জন্য বাড়ির লোক জানালার ফাঁক দিয়ে আব্দুলকে ঝলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। মোবাইল গেমের নেশায় আসক্ত হয়েই ওই যুবক আত্মহত্যা করেছে বলেই পরিবার ও পুলিশের প্রাথমিক অনুমান। এলাকার পঞ্চায়েত সদস্য আব্দুল খালেক জানিয়েছেন, ওই যুবক সারাদিন মোবাইল গেমে আসক্ত থাকতো। কিন্তু এই নেসায় মাত্র ১৯ বছরের যুবক এভাবে চলে যাবে ভাবতে পারছে না কেউই। এলাকার অনেক যুবক এই মোবাইল গেমে আসক্ত হয়ে পড়েছে। তিনি এইসব মোবাইল গেম বন্ধ করার জন্য সরকার ও প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

এই ঐতিহ্যবাহী ২২ ফুটের কালী পুজো চলছে ১০০ বছর থেকে

Tue Nov 2 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: নৈহাটির বড়মা ধর্ম হোক যার যার বড়মা সবার “”এই কথাটি প্রচলিত নৈহাটির এই বড়মা কালী পুজোয়। মুকুট ছাড়া 22 ফুট এর উচ্চতা। গত আট বছর ধরে শিল্পী শুভেন্দু সরকার মায়ের এই সুবিশাল প্রতিমা গড়ে এসেছেন। ঐতিহ্যবাহী এই পুজো সম্পর্কে চলুন জেনেনেই। আনুমানিক […]