অরুণাচলের কামেং নদীর জল আচমকাই কালো, চীনের কারসাজির আশঙ্কা

জন দেখেছেন : 43
0 0
পড়তে সময় লাগবে :2 মিনিট, 4 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ : অরুণাচল প্রদেশের কামেং নদীর জল এতো স্বচ্ছ, যা চাক্ষুষ করতে পর্যটকরাও ভিড় জমান। কিন্তু শুক্রবার হঠাৎই এলাকাবাসী লক্ষ করেন সেই কামেং নদীর জল কালো হয়ে গিয়েছে! এবং নদীর জলে কয়েক হাজার মৃত মাছ ভেসে উঠেছে। নদীর জল কালো দেখেই এলাকা জুরে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

অনেকেই নদীর জল কালো হওয়া এবং হাজার হাজার মাছ মারার পিছনে চীনের হাত দেখতে পাচ্ছেন। তাদের দাবি চীনের একাধিক জায়গায় নির্মাণের কাজ চলছে, সেখান থেকেই বর্জ্য পদার্থ এসেছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। সেপ্পা পূর্বের বিধায়ক তাপুক তাপু রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন করেছেন নদীর জল কেন কালো হয়েছে তার কারণ খুঁজে বের করার জন্য। তাঁর দাবি, নদীর জল এইরকম কালো বেশিদিন থাকলে সমস্ত প্রাণী মারা যাবে।

অরুণাচল প্রদেশ পূর্বের সাংসদ নিনং এরিং এই নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠিও দিয়েছেন। তাঁর দাবি চীন ১০ হাজার কিলোমিটার লম্বা ট্যানেল তৈরি করছে। তার ফলে তিনজিয়াং প্রদেশের সিয়াং নদীর জল কামেং নদীতে ফেলে দেওয়া হয়েছে। মৎস দফতরের আধিকারিক হালি তাজো জানিয়েছেন, নদীর এক লিটার জলে টিডিএস এর পরিমাণ থাকে ৬হাজার ৮০০ মিলিগ্রাম। সেখানে এখন টিডিএস- এর পরিমাণ কমে ১৩০০ থেকে ১২০০ হয়েছে। ফলে মাছ মারা যাচ্ছে। রাজ্যবাসীকে এই মাছ খেতে বারণও করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

জলপাইগুড়ির জোড়া দেবী চৌধুরাণী মন্দিরের পুজো আজও ইতিহাসের সাক্ষ্য বহন করে চলেছে

Sat Oct 30 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ : জলপাইগুড়ি জেলার পুরোনো পুজোগুলোর একটি হল জলপাইগুড়ি শহর সংলগ্ন শিলিগুড়ি-জলপাইগুড়ি ৩১ নং জাতীয় সড়কের পাশে গোশালা মোড়ের পুজো। অনেকের দাবি এটি দেবী চৌধুরাণী মন্দির। পুজোর ইতিহাসের ব্যাপারে জানা যায়, এখানকার পুজো প্রায় ৩৫০ বছরের পুরোনো। এখানে ৪০০ বছরের পুরোনো একটি বট […]