প্রার্থীপদ প্রত্যাহার না করায় তনিমা, সচ্চিদানন্দকে বহিষ্কার করল তৃণমূল

জন দেখেছেন : 19
0 0
পড়তে সময় লাগবে :2 মিনিট, 34 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: দলীয় নির্দেশ অমান্য করে নির্দল প্রার্থীপদ প্রত্যাহার না করায় তনিমা চট্টোপাধ্যায় ও সচ্চিদানন্দ বন্দ্যোপাধ্যায়কে বহিষ্কার করল তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূল কলকাতা পুরভোটে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করার সময় ৬৮ নম্বর ওয়ার্ড থেকে প্রথমে প্রয়াত পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের বোন তনিমা চট্টোপাধ্যায়কে প্রার্থী করেছিল।

কিন্তু তার পরের দিনই তাঁকে দলীয় প্রতীক ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য দলের তরফ থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়। এবং তাঁর জায়গায় ওই ওয়ার্ডের প্রার্থী করা হয় সুদর্শনা মুখোপাধ্যায়কে। তারপরই তিনি নির্দল প্রার্থী হিসেবে ওই ওয়ার্ড থেকে মনোনয়ন জমা দেন। অন্য দিকে ৭২ নম্বর ওয়ার্ডে নির্দল প্রার্থী হিসেবে ভোটে দাঁড়ান সচ্চিদানন্দ বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি তৃণমূলের প্রাক্তন কাউন্সিলর তথা কলকাতা পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান। ফিরহাদ হাকিম, মদন মিত্র, শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের মতো দলের শীর্ষ নেতৃত্বরা অনেকেই তাঁকে বোঝানোর চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু কোনও লাভ হয়নি।

গত ৪ ডিসেম্বর ছিল মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষদিন। তার আগেই কলকাতা জেলা তৃণমূল সভাপতি দেবাশিস কুমার পরিষ্কার হুঁশিয়ারি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছিলেন ৪ তারিখের মধ্যে মনোনয়ন প্রত্যাহার না করলে দল বিক্ষুব্ধ প্রার্থীদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেবে। তারপরও তাঁরা মনোনয়ন প্রত্যাহার না করায় তাঁদের বহিষ্কারের পথেই হাঁটল তৃণমূল। বিক্ষুব্ধ দুই নির্দল প্রার্থীকে বহিষ্কারের কথা বুধবার জানিয়েছেন দেবাশিস কুমার নিজেই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

রাজ্য সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে জানতে হবে বাংলা! ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর, কৃষক বন্ধু প্রকল্পে ৭৭ লক্ষ কৃষকে ২২০০ কোটি টাকা

Wed Dec 8 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: এবার রাজ্য সরকারি চাকরি পেতে বা করতে হলে বাংলা ভাষা অবশ্যই জানতে হবে। এবং বাংলায় চাকরির ক্ষেত্রে রাজ্যের ছেলেমেয়েদেরই অগ্রাধিকার দিতে হবে বলে বুধবার মালদহের প্রশাসনিক বৈঠক থেকে জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন মালদহের প্রশাসনিক বৈঠকে এই প্রসঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, […]