টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শুরুতেই নজির, চার বলে চার উইকেট নিলেন আইরিশ পেসার

জন দেখেছেন : 22
0 0
পড়তে সময় লাগবে :3 মিনিট, 9 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শুরু হতে না হতেই বিরল রেকর্ড! সোমবার আবুধাবিতে নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে পরপর চার বলে চার উইকেট নিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ইতিহাস গড়লেন আয়ারল্যান্ডের পেসার কার্টিস ক্যাম্ফার। আফগানিস্তানের স্পিনার রশিদ খান ও শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন পেসার লাসিথ মালিঙ্গার পর এই আইরিশ পেসার হলেন বিশ্বের তৃতীয় বোলার যিনি এই বিরল নজির গড়লেন।

২০১৯ সালে আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধেই রশিদ খান চার বলে চার উইকেট নিয়েছিলেন। ওই বছরেই নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে চার উইকেট নেন মালিঙ্গা। এছাড়াও আরও একটি রেকর্ড গড়েছেন ক্যাম্ফার। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দ্বিতীয় বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিকও করলেন। এর আগে ২০০৭ সালে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রথম বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করেছিলেন প্রাক্তন অজি পেসার ব্রেট লি। টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করা নেদারল্যান্ডসের ইনিংসের দশম ওভারের দ্বিতীয় বলে কলিন অ্যাকারম্যানকে কট বিহাইন্ড করেন ক্যাম্ফার। পরের দুই বলে কেকেআরে খেলে যাওয়া রায়ান টেন দুশখাতে ও স্কট এডওয়ার্ডসকে এলবিডব্লিউ করে হ্যাটট্রিক করেন। এবং ওভারের শেষ বলে ভ্যান ডার মারউইকে বোল্ড করে চতুর্থ উইকেটটি তুলে নেন ম্যাচের সেরা ক্যাম্ফার।

মাত্র চার বলের মধ্যেই ৫১ রানে ২ উইকেটে থেকে ৫১ রানে ৬ উইকেট হয়ে যায় ডাচদের। শেষে ২০ ওভারে ১০৬ রানেই থেমে যায় নেদারল্যান্ডসের ইনিংস। ডাচদের হয়ে সর্বাধিক ৪৭ বলে ৫১ রান করেন ওপেনার ম্যাক্স ও’দাউদ। সব মিলিয়ে ৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন ক্যাম্ফার। তাঁর এই রেকর্ড ছাড়া ম্যাচে আর কিছু ছিল না। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেট খুইয়ে ১৫.১ ওভারেই জয় তুলে নেয় আয়ারল্যান্ড। জোহানেসবার্গে জন্ম ক্যাম্ফারের এর আগে টি-টোয়েন্টিতে সেরা বোলিং ছিল ১৯ রানে ৩ উইকেট। সদ্য আইরিশ দলে অভিষেক হওয়া এই বোলারের সোমবারের পারফরমেন্স গোটা ক্রিকেট বিশ্বে হইচই ফেলে দিয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

এই দীপাবলিতে সিনেমা হলে আসছে"সূর্যবংশী"

Mon Oct 18 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজঃ আসছে দীপাবলি। বলতে গেলে আমাদের দেশ ভারতবর্ষের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর উৎসব দীপাবলি। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে, কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী এই উৎসবের আনন্দে মেতে ওঠে সকলের ঘরে ঘরে। দীপাবলীর চাওয়া পাওয়া বলতে গেলে, চারিদিকে আলোকিত পরিবেশ অন্ধকারের ঘনঘটা মুছে দেওয়া। খাওয়া-দাওয়া, নতুন পোশাক পরা, সেল ফোনে […]