বার বার চেয়েও মেলেনি স্মার্টফোন কেনার টাকা, আত্মঘাতী কিশোরী
Connect with us

বাংলার খবর

বার বার চেয়েও মেলেনি স্মার্টফোন কেনার টাকা, আত্মঘাতী কিশোরী

Rate this post

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: স্মার্টফোন কেনার টাকা না দেওয়ায় গলাই ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী কিশোরী। মৃতের নাম সৌমিতা প্রামানিক (১৭)। রবিবার ঘটনাটি ঘটেছে, মুর্শিদাবাদের সাগরপাড়ার দেবিপুর বানিয়াদিয়াড় এলাকায়।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে খবর, দামী মোবাইল ফোন কেনার জন্য বাড়িতে বেশ কিছুদিন ধরেই টাকা চাইছিল ওই কিশোরী। কিন্তু তার কথায় আমল না দিয়ে বিষয়টি এড়িয়ে চলে যায় বাড়ির লোকজন। হঠাৎ রবিবার সকালে ফের মায়ের কাছে ফোন কেনার জন্য টাকা চায় ওই কিশোরী।

জানা গিয়েছে, টাকা না পেয়ে নিজের ঘরে গিয়ে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে সে। কিছুক্ষণ পর পরিবারের লোকজন ঘরের দরজা বন্ধ দেখে সন্দেহ হওয়াতেই ঘরে ঢুকতেই কিশোরীর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান তাঁরা। এরপর পরিবারের লোকজন তড়িঘড়ি তাকে উদ্ধার করে ডোমকল সুপার ষ্পেশ্যালিটি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন। এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে হাসপাতালে পৌঁছয় পুলিশ। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়াতদন্তে পাঠায় ডোমকল থানার পুলিশ।

Advertisement

আরও পড়ুন: বঙ্গে ফোটেনি পদ্ম, জাতীয় কর্মসমিতির বৈঠকে গুড বুকে শুভেন্দু-সুকান্ত

অন্যদিকে, চাকরি থেকে বরখাস্ত হওয়া এক মহিলা পোস্ট অফিস কর্মীর আত্মহত্যা‌কে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল জলপাইগুড়ি‌তে। রবিবার বিকেলে মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটেছে জলপাইগুড়ি শহরের আশ্রমপাড়া এলাকায়।

মৃত মহিলার নাম রত্না সরকার। জানা গিয়েছে, তিনি একজন পোস্ট অফিস কর্মী ছিলেন। বছর কয়েক আগে কোন‌ও এক কারণে চাকরি থেকে তাঁকে বরখাস্ত করা হয়েছিল।

Advertisement

আরও পড়ুন: বিরল রোগে আক্রান্ত খুদেকে সুস্থ করতে প্রয়োজন ৪০ লাখ, মুখ্যমন্ত্রীর কাছে সাহায্যের আর্জি অসহায় বাবা-মায়ের

এরপর থেকেই তিনি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। এদিন বিকেলে তাঁকে ঘরের মধ্যে‌ই গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় দেখতে পান পরিবারের সদস্যরা। ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে আসে গোটা পরিবারে। খবর পেয়ে জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানার পুলিশ এসে মৃতদেহ‌টি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর, মৃত রত্না সরকার একটি সুইসাইড নোটে লিখে গিয়েছেন। তাঁর মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয় বলেও ওই নোটে জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement