মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পেয়েই চিংড়িহাটায় তৎপর পুলিশ

জন দেখেছেন : 15
0 0
পড়তে সময় লাগবে :2 মিনিট, 30 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজঃ চিংড়িঘাটায় পরপর দুর্ঘটনা নিয়ে বুধবার মধ্যমগ্রামে উত্তর ২৪ পরগনার প্রশাসনিক সভাতেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভবিষ্যতে যাতে একটিও দুর্ঘটনা না ঘটে, তার জন্য নিজেদের মধ্যে ইগোর লড়াই মিটিয়ে কলকাতা পুলিশ ও বিধাননগর পুলিশ কমিশনারেটকে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

গত কয়েক দিনের ব্যবধানে চিংড়িঘাটায় দু’টি দুর্ঘটনায় প্রাণ গিয়েছে দু’জনের৷ মঙ্গলবার সকালেও প্রাণ গিয়েছে এক বাইক আরোহীর। এর প্রধান কারণ হিসেবে দুর্বল ট্রাফিক ব্যবস্থাকেই বিঁধেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাই বুধবার রাতেই মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশেই তৎপর হন পুলিশকর্তারা। মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকের পরেই চিংড়িঘাটার ট্রাফিক ব্যবস্থা ঘুরে দেখেন রাজ্যে পুলিশের ডিজি মনোজ মালব্য, বিধাননগর কমিশনারেটের কমিশনার সুপ্রতিম সরকার এবং কলকাতা পুলিশের জয়েন্ট সিপি ট্রাফিক সন্তোষকুমার পান্ডে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই অতি তৎপর হয়ে ওঠে বিধাননগর পুলিশ, বেলেঘাটা ট্রাফিক গার্ড। সকাল থেকেই চিংড়িহাটায় চোখে পড়ল অতিরিক্ত ট্রাফিক কর্মী, হোমগার্ড, সিভিক ভলেন্টিয়ার। সকাল থেকেই মাইকিং করা হচ্ছে, জায়েন্ট স্ক্রিন রাখা হয়েছে। কেউ হেলমেট না পরলে বাধ্য করা হচ্ছে, রাস্তা পারাপারের জন্য আলাদা ব্যারিকেড রাখা হয়েছে। রাখা হয়েছে পুলিশ রিকভারি ভ্যান, আপাদকালীন ব্যবস্থা। কোনোরকম বিপদ হলেই সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেবে পুলিশ এবং গাড়ির গতি কমানোর জন্যও অনবরত মাইকিং করতেও দেখা গেল পুলিশকে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

মা বাড়িতে মোবাইল রেখে না যাওয়ায় আত্মঘাতী মেয়ে!

Fri Nov 19 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: গত ২০ মাস ধরে করোনা অতিমারীর জন্য স্কুল বন্ধ ছিল। তারপর থেকে শুরু হয় অনলাইন ক্লাস। ছাত্র-ছাত্রীরা ঘরে বসে অনলাইন ক্লাস করে পড়াশোনা চালু রাখে। বেশির ভাগ ছাত্র-ছাত্রী মোবাইলে অনলাইন ক্লাস করত। অনেকে বলতে শুরু করে অনলাইন ক্লাসের ফলে বাড়ির ছেলে-মেয়েরা মোবাইল […]