ত্রিপুরায় সুস্মিতা দেবের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় বিজেপিকে আক্রমণ অভিষেকের
Connect with us

বাংলার খবর

ত্রিপুরায় সুস্মিতা দেবের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনায় বিজেপিকে আক্রমণ অভিষেকের

Rate this post

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: ত্রিপুরায় ফের আক্রান্ত তৃণমূল। শুক্রবার ত্রিপুরায় জনসংযোগ কর্মসূচি চলানোর সময় তৃণমূলের রাজ্যসভার সাংসদ সুস্মিতা দেবের গাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ উঠল। শুধু তাই নয়, তাঁর ব্যাগ ও মোবাইল ছিনতাই করারও অভিযোগ তুলেছেন সুস্মিতা। গোটা ঘটনার জন্য বিজেপির দিকে আঙুল তুলেছেন সুস্মিতা সহ তৃণমূল। ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবকে ‘হিজড়া’ বলে আক্রমণ করেছেন সুস্মিতা। তিনি বলেছেন, ‘বিপ্লব দেব একজন হিজড়া। ব্যালটে লড়াই না করে গাড়িতে হামলা করছে।’ যদিও সুস্মিতা দেবের উপর আক্রমণের ঘটনা অস্বীকার করেছে বিজেপি।

উল্টে ত্রিপুরার পদ্ম শিবির দাবি করেছে এটা তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল। বৃহস্পতিবার থেকেই ত্রিপুরায় জনসংযোগ কর্মসূচি শুরু করেছে তৃণমূল। ‘ত্রিপুরার জন্য তৃণমূল’ নামক এই কর্মসূচি চলবে আগামী ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত। শুক্রবার তারই প্রচারে বের হলে দুপুর দেড়টা নাগাদ পশ্চিম ত্রিপুরার আমতলি বাজারের কাছে কয়েকজন সুস্মিতা দেবের গাড়ি ঘিরে ধরে ভাঙচুর চালায় এবং তাঁর ব্যাগ ও মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেছে তৃণমূল। সুস্মিতার অভিযোগ, এরা সকলেই বিজেপি কর্মী এবং কারও মুখেই মাস্ক ছিল না। এই নিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন সুস্মিতা। গোটা ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করেছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

টুইটারে বিপ্লব দেবের বিজেপি সরকারকে আক্রমণ করে তিনি লিখেছেন, ‘বিপ্লব দেবের নেতৃত্বে দুয়ারে গুন্ডারাজ বিরোধীদের উপরে আক্রমণের নতুন রেকর্ড তৈরি করছে। বিজেপি-র গুন্ডারা একজন মহিলা রাজ্যসভার সাংসদকে যে ভাবে শারীরিক নিগ্রহ করেছে তা লজ্জার ঊর্ধ্বে এবং রাজনৈতিক নাশকতা। সময় ঘনিয়ে এসেছে। ত্রিপুরার মানুষ এর জবাব দেবেন।’ তবে তার পাল্টা জবাব দিতেও ছাড়েনি বিজেপি। ত্রিপুরা বিজেপির মুখপাত্র সুব্রত চক্রবর্তী বলেছেন, ‘তৃণমূল আগে বাংলা নিয়ে ভাবুক। বিজেপি এই ধরনের সংস্কৃতিতে বিশ্বাসী নয়। নিজেদের গোষ্ঠী কোন্দলের জন্যই আজকে এই ঘটনা ঘটেছে। পুজোর আগে থেকেই ওদের কমিটি গঠন নিয়ে নিজেদের মধ্যে ঝামেলা চলছে। তারই বহিঃপ্রকাশ হল আজকে আমতলির এই ঘটনা। ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী, দেশের প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে কী অশালীন ভাষায় আক্রমণ করা হয়েছে, তা গোটা দেশ দেখেছে। এটাই তৃণমূলের সংস্কৃতি।’

Advertisement