বাঁশের সাঁকো ভেঙ্গে নদীতে পড়ে গেলেন কয়েকজন শ্রমিক

জন দেখেছেন : 19
0 0
পড়তে সময় লাগবে :2 মিনিট, 48 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ : পাহাড় এবং সমতলে টানা বৃষ্টির জেরে উত্তরবঙ্গ জুরে বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। তিস্তা, তোর্ষা নদীর পাশাপাশি জল বেড়েছে মহানন্দা নদীতেও। এদিকে মহানন্দা নদীর জল বাড়ায় জলেরস্রোতে বাঁশের সাঁকো ভাঙার খবর পাওয়া গেল। মালদার রতুয়া এক নম্বর ব্লকের চাঁদমনি অঞ্চলের লোকরি কোলাঘাটের বাঁশের সাঁকো ভেঙে জলে পড়ে গেলেন কয়েকজন শ্রমিক।

জানা গিয়েছে, গতকাল রাতে লোকরি কোলাঘাটের চাঁদমনি এলাকার কয়েকজন ভিন রাজ্যের শ্রমিক এবং কয়েকজন স্থানীয় বাসিন্দা সাঁকো পারাপার হচ্ছিলেন। সেই সময় হুরমুড়িয়ে ভেঙে পরে যায় ওই বাঁশের সাঁকো। সাঁকোতে থেকে জলে পড়ে যায় প্রায় ২৪ থেকে ২৫ জন শ্রমিক। এই ঘটনায় জখম হন সাত থেকে আট জন শ্রমিক। চিৎকার শুনে এলাকার স্থানীয় মানুষজন জলে পড়ে যাওয়া শ্রমিকদের উদ্ধার করে স্থানীয় গ্রামীন হাসপাতালে নিয়ে যায়। প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়। এই অবস্থায় দুই পাড়ের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। আপাতত দুই পাড়ের মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়েই নৌকা করে নদী পারাপার করছেন।

জানা গিয়েছে, মহানন্দা নদীর শাখা নদীর দুই পাড়ের মানুষদের যোগাযোগ মাধ্যম ছিল এই বাঁশের সাঁকো। এই বাঁশের সাঁকো দিয়ে প্রত্যেক দিন প্রায় কুড়ি হাজার লোক যাতায়াত করেন। এই সাঁকো ভাঙ্গায় দুই পাড়ের মানুষ সমস্যায় পড়েছেন। এই সাঁকো যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম। এই সাঁকো দিয়ে রতুয়া এক নম্বর ব্লকের চাঁদমনি এলাকার মানুষরা চলাচল করেন। এই সাঁকো দিয়ে রতুয়া এক, রতুয়া দুই ব্লকের চাঁদমনি, ভাদো, সামসি, পরানপুর ও মিরজাপুর এলাকার প্রায় দশ হাজার বাসিন্দা যাতায়াত করেন। এই সাঁকো ভাঙার ফলে দুই পাড়ের মানুষের বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছেন। স্থানীয়রা এখানে পাকা ব্রিজের দাবি জানিয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

গড়িয়াহাটে জোড়া খুনের কিনারা করে ফেলল পুলিশ, ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতে পরিচারিকা মিঠু

Fri Oct 22 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ : গড়িয়াহাটের কাঁকুলিয়া রোডের জোড়া খুনের ঘটনার কিনারা করে ফেলল কলকাতা পুলিশ। বৃহস্পতিবার কলকাতার পুলিশ কমিশনার সৌমেন মিত্র নিজেই এই কথা জানিয়েছেন। তবে খুনের রহস্য উন্মোচন হলেও এখনও সব অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। এই ঘটনায় গতকালই ডায়মন্ড হারবার থেকে মিঠু হালদার […]