হবিবপুরে মুসলিম মহিলার হাতেই পুজো হয় শেফালী কালী

Rate this post

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: মালদহের হবিবপুরে স্বপ্নাদেশে মুসলিম মহিলার হাতেই পুজো হয় শেফালী কালী। এই কালীপুজো একজন মুসলিম মহিলার হাতেই হয়ে থাকে। মালদহর হবিবপুর ব্লকের বুলবুলচন্ডী অঞ্চলের মধ্যেমকেন্দুয়া গ্রামের রেল লাইন ঘেঁষা এই কালীর স্থান। মুসলিম মহিলার নাম শেফালী বেওয়া।

তিনি জানিয়েছেন, প্রায় বছর ৪৫ আগে তিনি খুবই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন এবং কোনও ডাক্তার তাঁর রোগ ধরতে পারেননি। তখন হঠাৎ শেফালী বেওয়া স্বপ্নদেশ পান, মা কালীর পুজো করলে তাঁর অসুখ সেরে যাবে। এই কথা তিনি গ্রামবাসীদেরকে জানালে প্রথমে গ্রামবাসীরা কেউ এই কথা বিশ্বাস করতে চায়নি। একজন ‘মুসলিম’ কালী পুজো করবেন! এই কথা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। আপত্তিও ওঠে। কথিত আছে, হঠাৎই শেফালী দেবীর শরীরে ভর করেন মা কালী। এবং গ্রামবাসীদের সব কথা বলেন। তা শুনেই শুরু হয়ে যায় কালীপুজো।

গ্রামে যদি কারও অসুখৎবা কোনও অসুবিধা হয়, তখন এই শেফালী দেবীর কাছেই ছুটে আসেন গ্রামবাসীরা। শেফালী দেবীর শরীরে মা কালী ভর করে এবং তাঁদের সব অসুখ, অসুবিধা দূর হয়ে যায়। গ্রাম ছাড়াও জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে এই মায়ের কাছে ছুটে আসেন অনেক ভক্ত। ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে মাকালীর মূর্তি তৈরি কাজ।এই কালীপুজো রেল লাইনের ধারে ছোট একটা জায়গায় হয়ে আসছে। শেফালী নাম থেকে কালীর নাম হয়ে গিয়েছে শেফালী কালীপুজো। পুজো হয়ে যাওয়ার ১৫ দিন পরে মন্দিরের পুকুরেই প্রতিমা বিসর্জন করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ

Next Post

টানা সাত দিন বাড়ল পেট্রোলের দাম

Tue Nov 2 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: পেট্রোল, ডিজেলের দাম বাড়ছে শোনাটা এখন দেশের মানুষের কাছে অভ্যাসে পরিণত হয়ে গিয়েছে। কারণ এক দিন বা দু’দিন নয় একটানা সাত দিন বাড়ল পেট্রোল, ডিজেলের দাম। এর ফলে মধ্যবিত্তদের কপালে চিন্তার ভাঁজ চওড়া হচ্ছে। অনেক গাড়ি ব্যবসায়ী গাড়ি বের না করার সিদ্ধান্ত […]

আপনার পছন্দের সংবাদ