Sabyasachi Chowdhury : ফেসবুক বন্ধ করে দিলেন সব্যসাচী চৌধুরী, নয়া চিন্তার ভাঁজ

Sabyasachi Chowdhury
জন দেখেছেন : 1743
1 0
Read Time:3 Minute, 13 Second

ডিজিটাল ডেস্ক –  বাংলা টলিউড ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম পরিচিত মুখ ছিলেন তরুণী অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma), তার কাছের বন্ধু তথা প্রেমিক অভিনেতা সব্যসাচী চৌধুরী (Sabyasachi Chowdhury)। অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা বেঁচে থাকা কালীন তার সাথে কাটানো মুহুর্তের এবং তার অসুস্থ থাকা কালীন তার শারীরিক অবস্থার পরিবর্তন নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপডেট করতেন সব্যসাচী । ইতিমধ্যে প্রেমিকা অকাল প্রয়াণে ভেঙ্গে পরেছেন সব্যসাচী, পরিবারের সাথে তেমন কথা না বলে একাকীত্বে থাকতে পছন্দ করছেন বলে জানা যায় সুত্রের খবরে।

ইতিমধ্যে সব্যসাচী তার ফেসবুক ও ইন্সতাগ্রাম একাউন্ট দুটো ডিএক্টিভেট করে দিয়েছেন। এই খবর অনুরাগীদের কাছে পৌঁছাতেই ফের উত্তাপ বাড়ছে। অভিনেতার দ্রুত স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার জন্য সবাই অনুরোধ করছে ।

Sabyasachi Chowdhury

প্রসঙ্গত, ঐন্দ্রিলা ২ বার ক্যানসারের সঙ্গে যুদ্ধ করে সেই সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়ে কাজে ফিরেছিলেন, তবে মানতেই হবে লড়াইয়ের অন্যতম নাম ঐন্দ্রিলা শর্মা। এইবার দীপাবলির সন্ধ্যাতেও সেজেগুজে প্রেমিক সব্যসাচী চৌধুরী সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোকময় ছবি পোস্ট করেছিলেন ঐন্দ্রিলা। কিন্তু ফের ১লা নভেম্বর ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হন ঐন্দ্রিলা। তাঁর শরীরের একদিক অসাড় হয়ে যায়।

অচেতন হয়ে পড়েন আর জ্ঞান ফিরতেই ঘন ঘন বমি করতে থাকেন। তাঁর পরিবার ও বন্ধু সব্যসাচী চৌধুরী সঙ্গে সঙ্গেই তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে ছোটেন। সেদিন রাতেই অস্ত্রোপচার হয় ঐন্দ্রিলার। তখন থেকেই ভেন্টিলেশনে ছিলেন তিনি। মাঝে একবার তাঁকে ভেন্টিলেশন থেকে বার করার প্রক্রিয়া শুরু হলেও, শরীরে সংক্রমণ বাড়তেই ফের তাঁকে সি-প্যাপ ভেন্টিলেশনে রাখা হয়। মাঝে বাঁ হাত ও চোখের পাতা একটু নাড়ালেও, জ্ঞান ফেরেনি ঐন্দ্রিলার। অবশেষে আজ সকালে মাত্র ২৪ বছর বয়সেই জীবন যুদ্ধের ইতি টানলেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা । 

সর্বত্রই ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে ঐন্দ্রিলার স্মৃতি। তাই সব্যসাচী হয়তো ভেবেছেন মনের স্মৃতিকোঠরে রেখে দেবেন সেইসব স্মৃতি। এমনটাও ভাবছেন একাংশ । 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

জেনে নিন এই খাবারগুলি থেকে বেশি ক্যালোরি পাওয়া

Tue Nov 22 , 2022
অতিরিক্ত ক্যালরিযুক্ত খাবার শরীরের ওজন বৃদ্ধি করে। যাদের ওজন কম শরীর রোগা তাদের জন্য উচ্চ ক্যালরিযুক্ত খাবার খাওয়া দরকার। তবে সকলের ক্ষেত্রেই একই পরিমাণ ক্যালরি প্রযোজ্য নয়।
প্রতিদিন দেহে কি পরিমান ক্যালরির প্রয়োজন