তাঁর সিদ্ধান্ত যে মানুষের জন্য কল্যাণকর, সেটাই বোঝালেন রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী

জন দেখেছেন : 12
0 0
পড়তে সময় লাগবে :2 মিনিট, 59 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: তাঁর উদ্দেশ্য যে মানুষের পাশে দাঁড়ানো, তা বারবার প্রমান করেছেন রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী। গত কয়েকবছর ধরেই একের পর এক জণকল্যাণকর উদ্যোগ নিয়ে চলেছেন। বিপদে পড়া মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ছুটে গিয়েছেন তিনি। মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য কখনও ধর্ম, বর্ণ দেখেননি। আবার কখনও রাজনৈতিক রং দেখেননি।

তাঁর এই উদারতাই পারে রায়গঞ্জবাসীর দুঃখ- দুর্দশা মুছে দিতে। সেটা খুব ভালো করেই বুঝেছিলেন সমগ্র রায়গঞ্জবাসী। তাই গত বিধানসভা নির্বাচনে রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্র থেকে তাঁকে জিতিয়ে বিধায়ক বানান রায়গঞ্জের মানুষ। বিধায়ক হয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আরও প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়েছেন। পরিষেবা দেওয়ার জন্য ঘোষণা করছেন একের পর উদ্যোগ। কারও বিপদের কথা শুনে কাল বিলম্ব না করে পৌঁছে যান সেখানে, বাড়িয়ে দেন সহযোগিতার হাত। সেই রকম আরও একবার বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণীর মানবিক চিত্র ধরা পড়ল। রায়গঞ্জ বিধানসভা এলাকার ৮ নং বাহিন গ্রাম পঞ্চায়েতের চাপদুয়ার এলাকার বাসিন্দা অতুল বর্মণের বাড়িতে গত ১১ নভেম্বর আগুন লেগে ঘরের সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

সর্বস্ব হারিয়ে অতুল বর্মণ খুব সমস্যার মধ্যে আছেন। খবর পাওয়া মাত্র শনিবার অতুল বর্মণের বাড়িতে ছুটে যান রায়গঞ্জের বিধায়ক কৃষ্ণ কল্যাণী। বিভিন্ন প্রয়োজনীয় সামগ্রী ও আর্থিক সহযোগিতা তাঁর হাতে তুলে দেওয়ার পাশাপাশি প্রত্যেক মুহূর্তে পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন রায়গঞ্জের বিধায়ক। কৃষ্ণ কল্যাণীর এই মানবিক মুখ দেখে গর্বিত অতুল বর্মণ এবং চাপদুয়ার এলাকার মানুষ। সবাই একবাক্যে মেনে নিচ্ছেন, পাঁচ বছর বিধায়ক থাকলেও একজন বিধায়ক যে কাজ করেন না, কৃষ্ণ কল্যাণী গত ছয় মাসে তাঁদের থেকে বেশি কাজ করছেন। কৃষ্ণ কল্যাণীর মত মানুষকে বিধায়ক হিসেবে পেয়ে গর্বিত বলে জানিয়েছেন এলাকার মানুষ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

মঞ্চে উঠে নাচ-গান, বিতর্কে জড়ালেন ময়নাগুড়ির বিধায়ক

Sun Nov 14 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: দেহরক্ষীদের নিয়ে মঞ্চে উদ্দাম নেচে বিতর্কে জড়ালেন ময়নাগুড়ির বিজেপি বিধায়ক কৌশিক রায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার গভীর রাতে ময়নাগুড়ির ধারাইকুড়ি সর্বজনীন কালীপুজোর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক। কৌশিকবাবুর নিরাপত্তার জন্য কেন্দ্রীয় বাহিনীর দুই জওয়ানও ছিলেন। অভিযোগ, মঞ্চে দুই দেহরক্ষীকে নিজের দু-পাশে […]