রাষ্ট্রদ্রোহিতা ও অস্ত্র আইনে বিশ্বভারতীর এক প্রাক্তন ছাত্রকে গ্রেফতার করল ঝাড়গ্রাম পুলিশ
Connect with us

বাংলার খবর

রাষ্ট্রদ্রোহিতা ও অস্ত্র আইনে বিশ্বভারতীর এক প্রাক্তন ছাত্রকে গ্রেফতার করল ঝাড়গ্রাম পুলিশ

Rate this post

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ : বিশ্বভারতীর প্রাক্তন এক ছাত্রকে দেশদ্রোহীতা আইনে গ্রেফতার করল ঝাড়গ্রাম থানার পুলিশ। পাঁচ বছরের একটি পুরনো মামলায় বুধবার শান্তিনিকেতনের গুরুপল্লি এলাকা থেকে টিপু সুলতান মোস্তফা কামাল নামে বিশ্বভারতীর এক প্রাক্তন ছাত্রকে ঝাড়গ্রাম থানার পুলিশ গ্রেফতার করে। বিশ্বভারতীর অর্থনীতির প্রাক্তন ছাত্রকে ইউএপিএ আইনের পাশাপাশি অস্ত্র আইনের ২৫ ও ২৭ নম্বর ধারায় অভিযুক্ত করা হয়েছে। এর আগেও টিপু সুলতানকে মাওবাদী সন্দেহে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

বিশ্বভারতীর প্রাক্তন ছাত্র টিপু সুলতানকে দেশদ্রোহিতা আইনে গ্রেফতার করায় শান্তিনিকেতনের গুরুপল্লী এলাকায় বুধবার ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। বৃহস্পতিবার তাঁকে ঝাড়গ্রাম বিশেষ আদালতে তোলা হয়। তাঁকে ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতে নেওয়ার আবেদন করলে মহামান্য আদালত ৭ দিন পুলিশ রিমান্ডের নির্দেশ দিয়েছে। কিছু না জানিয়েই টিপু সুলতানকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে বলে দাবি করেছেন তাঁর মা ফরিদা খাতুন। তাঁর অভিযোগ ২০১৬ সালেও এই একই অভিযোগে টিপুকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। ধৃতের মা বলেছেন, ‘গত মঙ্গলবার দিন কাউকে কিছু না জানিয়ে আমার ছেলেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আমরা তখন বাড়িতে ছিলাম না। গতকাল আমাদের থানা থেকে খবর দেওয়া হয়। আমার ছেলের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যে। আমার ছেলে কোনরকম অবৈধ কাজ ও সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত নয়। ২০১৬ সালেও ওকে এই অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছিল। তখন ওর বয়স ছিল ১৯ বছর। বিশ্বভারতীতে পড়াশুনা করত। হঠাৎ এতদিন পর আবার ওই একই মামলায় কেন ওকে গ্রেফতার করা হল, তা আমরা বুঝতে পারছি না।’

Continue Reading
Advertisement