গরমে প্রতিদিন পাতে থাকুক টক দই, উপকার পাবেন নিমেষে

জন দেখেছেন : 10
0 0
পড়তে সময় লাগবে :3 মিনিট, 0 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: এই গরমে টক দই খেতে অনেকেই পছন্দ করেন। আবার অনেকেরই খাওয়ার শেষ পাতে টক দই রাখেন। কেউ আবার দুধের বিকল্প হিসেবেও দই খেতে ভালোবাসেন। কারণ, এই টক দইয়ের রয়েছে অনেক উপকারী গুণ। সম্প্রতি গবেষণায় দেখা গিয়েছে, টক দই রক্তের ক্ষতিকারক কোলেস্টেরল এলডিএল বা ভিএলডিএল কমাতে সাহায্য করে। এতে যারা ডায়াবেটিস, হার্টের অসুখ বা উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন, টক দই তাদের জন্য ভীষণ উপকারী বন্ধুর মতো কাজ করে। আর তাদের নিয়মিতভাবে অবশ্যই দৈনিক এক কাপ টক দই খাওয়ার অভ্যাস করা উচিত।

এই টক দই ঘরে পাতা হলেই সবচেয়ে ভালো হয়। গ্রীষ্মকালে আমাদের দেহের জন্য অন্যতম আদর্শ খাদ্য হল টক দই। এটি অত্যন্ত পুষ্টিকর। এতে ভিটামিন ‘সি’ বাদে সব ধরনের ভিটামিন, মিনারেলস, উচ্চ মানের প্রোটিন, ফ্যাট এবং ল্যাকটোজ নামক কার্বোহাইড্রেট থাকে। অনেকের দুধ খেলে সহজে হজম হয় না, তাদের জন্য টক দই উপযুক্ত।

আরও পড়ুন: কর্পূর ব্যবহারে বৃদ্ধি পায় কামোদ্দীপনা

টক দই আমাদের দেহের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে, কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে, শিশুদের মস্তিষ্ক, দাঁত ও হাড়ের সুগঠন করে দেহের সঠিক বৃদ্ধি বজায় রাখে। এ ছাড়া বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে। অন্ত্রনালিতে ভিটামিন ‘বি’ তৈরি করে। তাই খাদ্যতালিকায় নিয়মিত টক দই রাখুন।

টক দই শরীরে টক্সিন জমতে দেয় না। ফলে কোষ্ঠ পরিষ্কার থাকে। টক দই শরীরের উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে। আবার রক্তে খারাপ কোলেস্টেরল বা এলডিএলের মাত্রাও কমিয়ে দেয়।

আরও পড়ুন: খুলতে চলেছে ভুটানের সবথেকে দামি ও ব্যয়বহুল জায়গায়

টক দই খেলে হজম শক্তি ভাল থাকে। কারণ এটি ভাল ব্যাকটিরিয়ার পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। আলসারের আশঙ্কাও কমে এর ফলে। শরীরের মেদ বৃদ্ধিতে সহায়ক হরমোন তৈরিতেও বাধা দেয় টক দইয়ে থাকা ক্যালসিয়াম। তাই টক দই খেলে বাড়তি ওজন কমার সম্ভাবনাও রয়েছে। একই কারণে রোজ টক দই খেলে দাঁতের গঠনও মজবুত হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

সাপে কাটা শিশু নিয়ে ওঝার কাছে, গ্রামবাসীকে সচেতনতার পাঠ দিতে আসরে যুক্তিবাদী সমিতি

Sun Jul 3 , 2022
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: একবিংশ শতাব্দীতে দাঁড়িয়েও দূর হল না অন্ধবিশ্বাস আর কুসংস্কার। যার ফলে বুজরুকিতে সময় নষ্ট করে অকালে ঝড়ে গেল একটি প্রাণ। সাপের কামড়ে ওঝার বুজিরুকিতে সময় নষ্ট করে শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় মাঠে নামল যুক্তিবাদী সমিতি। গ্রামে গিয়ে সাপের কামড়ের সাইন সিম্পটম বোঝালেন যুক্তিবাদীরা। […]