সলমনকে ছেড়ে অভিষেকের সঙ্গে বিয়ে, ঐশ্বর্যকে নিয়ে বিষ্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন ‘প্রাক্তন’ সলমন
Connect with us

বিনোদন

সলমনকে ছেড়ে অভিষেকের সঙ্গে বিয়ে, ঐশ্বর্যকে নিয়ে বিষ্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন ‘প্রাক্তন’ সলমন

Rate this post

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: কিছু ফেলে আসা দিন এক সময় স্মৃতি হয়ে যায়। আর সেলিব্রেটিদের প্রেম কাহীনি ইতিহাস হয়ে রয়! বলিউডের অন‍্যতম আইকনিক জুটি সলমন খান ও ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। দু’জনের এক সময়কার সম্পর্ক নিয়ে চর্চা তুঙ্গে ছিল, আছে এবং থাকবেও।

‘হাম দিল দে চুকে সনম’ ছবির সেটেই দু’জনের ঘনিষ্ঠতা, তারপর সম্পর্ক। কিন্তু খুব খারাপ ভাবে নষ্ট হয়ে যায় সে সম্পর্ক। তারপর এক সময় অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন ঐশ্বর্য। এই বিয়েটা নিয়ে একবার মুখও খুলেছিলেন সলমন। কী বলেছিলেন তিনি? ঐশ্বর্য-অভিষেকের বিয়ে বলিউডে অন‍্যতম ‘হট গসিপ’ ছিল। মিস ওয়ার্ল্ডের আচমকা এই সিদ্ধান্তে তাঁর প্রাক্তন সলমন কী বলবেন তা নিয়ে কৌতূহলও ছিল আমজনতার মধ‍্যে। এ বিষয়ে পরে এক সংবাদ মাধ‍্যমে সাক্ষাৎকারে মুখও খুলেছিলেন ভাইজান‍। তাঁর প্রতিক্রিয়া শুনে চমকে গেলেও যেতে পারেন।

বিয়ে পরবর্তী জীবনের জন‍্য ঐশ্বর্যকে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন সলমন। তিনি জানিয়েছিলেন, অভিষেক খুবই ভাল মানুষ। তবে ঐশ্বর্যর এই সিদ্ধান্তে তিনি খুশি। সলমন বলেছিলেন, ‘আমি চাইব ও খুব সুখী জীবন কাটাক।’ তা অবশ‍্য কাটাচ্ছেন ঐশ্বর্য। স্বামী অভিষেক ও মেয়ে আরাধ‍্যাকে নিয়ে তাঁর সুখের সংসার। কিন্তু সলমন এখনও অবিবাহিতই থেকে গিয়েছেন। সলমন ও ঐশ্বর্যর আলাপ ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ এর শুটিং সেটে। সেখান থেকে বন্ধুত্ব ও পরে তা গড়ায় প্রেমে।

Advertisement

কিন্তু সম্পর্ক শুরু হতে না হতেই শুরু হয় সমস‍্যা। কারণ দু’জনের মধ‍্যে মনোমালিন‍্য। সমস‍্যা বাড়তে বাড়তে তা শেষ পর্যন্ত হাতাহাতিতে পৌঁছয়। ২০০০ সাল আসতে আসতেই দু’জনের সম্পর্কে টানাপোড়েনের খবর সামনে আসতে থাকে। ২০০২ সালে সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে যায় দু’জনের কথাবার্তা। এরপর বিবেক ওবেরয়ের সঙ্গে ঐশ্বর্য সম্পর্কে জড়ালেও টেকেনি সেই সম্পর্ক। তারপরেই অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে সম্পর্কে আসেন অভিনেত্রী ও ২০০৭ সালে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন তাঁরা। এদিকে ভাইজান আজও অবিবাহিত রয়ে গেছে।

Continue Reading
Advertisement