Viral News: যাত্রী নিরাপত্তাকে অগ্রাধিকার দিতে ১৬ ঘণ্টায় ২৫৪টি মেট্রো ষ্টেশন ভ্রমণ, গিনেজ বুকে নাম তুললেন মেট্রোআধিকারিক
Connect with us

ভাইরাল খবর

Viral News: যাত্রী নিরাপত্তাকে অগ্রাধিকার দিতে ১৬ ঘণ্টায় ২৫৪টি মেট্রো ষ্টেশন ভ্রমণ, গিনেজ বুকে নাম তুললেন মেট্রোআধিকারিক

Rate this post

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: ‘মেট্রোরেল’ গতিময় জীবনে চটজলদি গন্তব্যে পৌঁছে দিতে ভারতীয় রেলের ‘মেট্রোরেলের’ ভূমিকা অনবদ্য। প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের মেট্রো ষ্টেশনে কয়েক লাখ যাত্রী মেট্রোতে সওয়ার করেন। আর এই মেট্রোরেলে ভ্রমণকালে যাত্রীদের নিরাপত্তা বিশেষ করে মহিলাদের নিরাপত্তার ব্যাপারটি বেশি অগ্রাধিকার দিয়ে থাকেণ রেল কর্তৃপক্ষ।

আর সেই উদ্দেশ্যেই মেট্রোরেলের পরিষেবার এবং খুঁটিনাটি বিষয় স্বচক্ষে দেখতে মাত্র ১৬ ঘণ্টা ২ মিনিটে ২৫৪টি মেট্রো রেলস্টেশন ঘুরে বিশ্ব রেকর্ড করলেন দিল্লি মেট্রোরেল কর্পোরেশনের কর্মচারী প্রফুল্ল সিং। শুধু তাই নয়, তাঁর এই অবিশ্বাস্য রেকর্ড জায়গা করে নিয়েছে ‘গিনেজ’ বুকেও। শুধু তাই নয়, আরও জানা গিয়েছে প্রফুল্ল সিং হলেন প্রথম ভারতীয় যিনি মাত্র ১৬ ঘণ্টা ২ মিনিটে ৩৪৮ কিলোমিটার পথ ভ্রমণ করে ঘুরে দেখেছেন ২৫৪টি মেট্রো স্টেশন। তাঁর এই গিনেজ রেকর্ডের খবর সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই মুহুর্তের মধ্যে তাতে বইতে থাকে লাইক আর কমেন্টের বন্যা।

আরও পড়ুন: প্রতিদিন রাতে ১০ কিলোমিটার দৌড়ান তিনি, যুবকের কীর্তি অবাক করবে আপনাকেও

Advertisement

<blockquote class=”twitter-tweet”><p lang=”en” dir=”ltr”>DMRC employee Prafull Singh has entered into the Guinness World Records for recording the 'Fastest time to travel to all Metro stations'. This makes him the first person to travel to 254 stations covering 348 kms in just 16 hrs 2 minutes. DMRC family is proud of Prafull's feat. <a href=”https://t.co/RswgUBgANi”>pic.twitter.com/RswgUBgANi</a></p>&mdash; Delhi Metro Rail Corporation I कृपया मास्क पहनें😷 (@OfficialDMRC) <a href=”https://twitter.com/OfficialDMRC/status/1503704497368887301?ref_src=twsrc%5Etfw”>March 15, 2022</a></blockquote> <script async src=”https://platform.twitter.com/widgets.js” charset=”utf-8″></script> 

আরও পড়ুন:  ওঁরা বোঝে না শরণার্থী কথার মানে! সীমান্তে দুই খুদের সঙ্গে খেলায় মত্ত স্লোভাক পুলিশ

শুধু তাই নয়, প্রফুল্লের এমন কীর্তিকে কুর্নিশ জানিয়েছেন নেটজনতা। তবে শুধু নেটপাড়া নয়, তাঁর এই সাফল্যে খুশি প্রফুল্লের পরিবারের সদস্যরাও। যাত্রীদের নিরাপত্তাকে অগ্রাধিকার দিতে একজন মেট্রোরেল আধিকারিকের এমন কাজকে কুর্নিশ জানিয়েছেন সকলেই। অনেকেই আবার কমেন্ট বক্সে লিখেছেন ‘সত্যিই একেবারে অন্যরকম অসাধারণ কাজ করে দেখিয়েছেন তিনি।”

Advertisement