প্রচারে বেরিয়ে তৃণমূল সমর্থকদের বাধার মুখে দিনহাটার বিজেপি প্রার্থী, অভিযোগ অস্বীকার শাসকদলের

জন দেখেছেন : 17
0 0
পড়তে সময় লাগবে :4 মিনিট, 50 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: প্রচারে বেরিয়ে বাধার মুখে পড়লেন দিনহাটার বিজেপি প্রার্থী অশোক মন্ডল। সোমবার বামনহাট সংলগ্ন বাজার এলাকায় প্রচারে গেলে তাঁকে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকরা প্রচারে বাধা দেওয়ার পাশাপাশি শারীরিকভাবে নিগ্রহ করে বলে অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। প্রচারে উপস্থিত ছিলেন নাটাবাড়ির বিধায়ক মিহির গোস্বামীও। তাঁকেও শারীরিক নিগ্রহের শিকার হতে হয় বলে অভিযোগ। তাদের ঘিরে ধরে দলীয় পতাকা হাতে চুলগুলো কর্মীরা ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দিতে থাকেন।

ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়। যদিও পুলিশ প্রশাসন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করতে রাজি নয়। এই প্রসঙ্গে অশোক মন্ডল এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে তৃণমূল এবং দিনহাটার প্রার্থী উদয়ন গুহকে আক্রমণ করে বলেছেন, পূর্বনির্ধারিত পরিকল্পনা অনুযায়ী আমরা বামন হাট বন্দরে প্রচার করতে যাচ্ছিলাম। কিন্তু বামন হাট বাজারের প্রচার করার সময় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা আমাকে এবং নাটাবাড়ির বিধায়ক মিহির গোস্বামীকে ঘিরে ধরে গো ব্যাক স্লোগান দিতে থাকে এবং অকথ্য ভাষায় গালাগালি করতে থাকে। কখনও আমাদের সামনে, কখনও পিছনে এইভাবে নোংরামি করেছে।

এমনকী আমাদের ধাক্কাও মারা হয়। আমি ৪০ বছর ধরে রাজনীতি করছি। এইরকম ঘটনা কখনও দেখিনি। ওরা আগেই জানিয়ে দিয়েছিল শান্তিপূর্ণভাবে ভোট করতে দেবে না। সেই কারণেই আজ আমাদের বাধা দেওয়া হল। আমিও ছেড়ে দেওয়ার পাত্র নই। শেষ নিশ্বাস পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাব। এদিনের এই ঘটনার জবাব দেবে গোটা দিনহাটা। ২০০৬ সালের নির্বাচনে বাম প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন উদয়ন গুহ। সেবার আমায় দিনহাটার মানুষ দুহাত ভরে আশীর্বাদ করেছিল। এবারের নির্বাচনেও দিনহাটাবাসী আমার পাশেই থাকবে বলে বিশ্বাস।’ এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন মিহির গোস্বামীও। নাটাবাড়ির বিজেপি বিধায়ক বলেছেন, ‘তৃণমূল কংগ্রেস গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না তৃণমূল সন্ত্রাস এবং তুষ্টিকরণে বিশ্বাস করে।

তারই নমুনা আজকের এই ঘটনা। আমি আজ দিনহাটা কেন্দ্রে প্রার্থী অশক মণ্ডলের সঙ্গে বামন হাট বন্দরগুলোতে এবং বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচার করছিলাম। এখানে এসেই সন্ত্রাসের যে চেহারা বা আবহাওয়া দেখলাম তাতে আফগানিস্তানের মানুষরাও লজ্জা পাবে। উদয়ন গুগোল যতই গুন্ডামি করুন সন্ত্রাস সৃষ্টির চেষ্টা করুন, হয়তো পয়সা দিয়ে বাংলাদেশ থেকে কিছু হার্মাদ নিয়ে আসবে অথবা এলাকার দুধেল গাইদের দিয়ে বিজেপি কর্মী, প্রার্থী এবং বিধায়ককে আক্রমণ করতে পারে, কিন্তু মানুষের অধিকারকে আটকে রাখতে পারবে না।

আমরা যখন রাস্তায় এবং বাড়ি বাড়ি প্রচার করছিলাম তখন স্বতঃস্ফূর্তভাবে মানুষেরা আমাদের ইশারা করে, প্রত্যুত্তরে পাশে থাকার বার্তা দিয়েছে। এই সন্ত্রাস, তোষণ এবং দুধেল গাইদের শায়েস্তা করতে মানুষ তৃণমূল কংগ্রেসকে ভোট দেবে না। বিজেপি প্রার্থী অশোক মন্ডলকে মানুষ জয়ী করবে।’ এদিনের এই ঘটনার পর পুলিশ-প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। যদিও বিজেপির তোলা এদিনের সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরের শতবর্ষ প্রাচীন আদিবাসী নৃত্য মেলা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বার্তা দেয়

Mon Oct 18 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: হিন্দু-মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ের উদ্যোগে মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার কুমেদপুর তালগ্রাম হাটে সোমবার অনুষ্ঠিত হয়ে গেল শতবর্ষ প্রাচীন আদিবাসী নৃত্য মেলা। হরিশ্চন্দ্রপুর সহ জেলার ১২ সাঁওতালি নৃত্যের দল এই মেলায় অংশগ্রহণ করেছিল। শতবর্ষ ধরে চলছে হরিশ্চন্দ্রপুর তালগ্রাম হাট অঞ্চলে আদিবাসী নৃত্যের মেলা। এই […]