তৃণমূল ঝড়ে ধুয়েমুছে সাফ বিজেপি, দিনহাটা-শান্তিপুর ধরে রাখতে পারল না পদ্ম শিবির

জন দেখেছেন : 28
0 0
পড়তে সময় লাগবে :5 মিনিট, 31 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: শেষ পর্বের উপনির্বাচনেও তৃণমূল ঝড়। মঙ্গলবার রাজ্যের চার বিধানসভা কেন্দ্রের ভোটের ফলাফল প্রকাশিত হল। চার বিধানসভা আসনের ভোটে কার্যত ধুয়ে মুছে সাফ হয়ে গেল বিজেপি। শান্তিপুর ছাড়া বাকি তিন কেন্দ্রেই জামানত জব্দ হল বিজেপির।

তবে চার কেন্দ্রেই তিনে রইল বামেরা। চার কেন্দ্রেই বিপুল ব্যবধানে জিতেছে ঘাসফুল শিবির। কোথাও লক্ষাধিক ভোট তো কোথাও ৫০ হাজার ভোটে বিজেপিকে দুরমুশ করেছে তৃণমূল। এমনকী, পদ্মশিবিরের শক্তঘাঁটি কোচবিহারের দিনহাটা আর নদীয়ার শান্তিপুর কেন্দ্রেও মুখ থুবড়ে পড়ল পদ্ম শিবির। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা দাবি করেছিলেন, বাংলায় ‘ইসবার দো’শো পার’। কিন্তু শাহ-নাড্ডাদের বেঁধে দেওয়া লক্ষ্যমাত্রার ধারেকাছেও পৌঁছতে পারেনি গেরুয়া শিবির। সাতাত্তরেই থেমেছিল তাঁদের ‘জয়রথ’। এর পর দু’দফা উপনির্বাচন হয়ে গেল রাজ্যে। তাতেও দাঁত ফোটাতে ব্যর্থ তারা। উলটে ছ’মাসের মধ্যে বিজেপির হাতছাড়া হল আরও দু’টি বিধানসভা আসন।

শক্তিক্ষয় হল গেরুয়া গড়েও। বিজেপির গড় হিসেবে পরিচিত উত্তরবঙ্গের দিনহাটা কেন্দ্রে গেরুয়া প্রার্থী অশোক মণ্ডল পেয়েছেন মাত্র ২৫ হাজার ৪৮৬ ভোট। সেখানে তৃণমূল প্রার্থী উদয়ন গুহর প্রাপ্ত মোট ভোট ১ লক্ষ ৮৯ হাজার ৫৭৫। ব্যবধান ১ লক্ষ ৬৪ হাজার ৮৯ ভোট। তাৎপর্যপূর্ণভাবে এবার বিধানসভা ভোটে এই কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছিলেন নিশীথ প্রামাণিক। তাও মাত্র ৫৭ ভোটে। কিন্তু তিনি সাংসদ পদ ছাড়েননি। বদলে বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেন। সেই কেন্দ্রের উপনির্বাচনে নিশীথ প্রামাণিকের নিজের বুথেই হেরেছে বিজেপি। সেই বুথে বিজেপির প্রাপ্ত ভোট মোটে ৯৫। বিজেপির চেয়ে ২৭৫ ভোট বেশি পেয়েছে তৃণমূল। এমনকী, বিজেপি প্রার্থী অশোক মণ্ডলের বুথে জয় পেয়েছে তৃণমূল।

যা দেখে রাজনৈতিক মহল বলেছে, উত্তরবঙ্গে শক্তঘাঁটিতেও টলমল বিজেপির সংগঠন। যা চব্বিশের লোকসভা ভোটের আগে ভাবাচ্ছে বিজেপিকে। লক্ষাধিক ভোটে জয় পেয়েছেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার গোসাবার তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মণ্ডলও। তিনি পেয়েছেন ১ লক্ষ ৬১ হাজার ৪৭৪ ভোট। বিজেপিকে ১ লক্ষ ৪৩ হাজার ৫১ ভোটে হারাল তৃণমূল। খড়দহেও জিতলেন তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। ভোটের দিন মাঠে নেমে লড়াই করেছিলেন বিজেপি প্রার্থী জয় সাহা। কিন্তু ভোটের ফল প্রকাশ হতেই তাঁর সেই জারিজুরি শেষ। একটা সময় তো বামপ্রার্থীর থেকেও পিছিয়ে পড়েছিলেন তিনি। শেষমেশ কোনওরকমে খড়দহে দ্বিতীয় স্থান ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছেন বিজেপি প্রার্থী।

তাঁর ঝুলিতে এসেছে ২০ হাজার ২৫৪ ভোট। সেখানে তৃণমূলের পোড়খাওয়া রাজনীতিবিদ শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় পেয়েছেন ১ লক্ষ ১৪ হাজার ৮৬ ভোট। জয়ের ব্যবধান ৯৩ হাজার ৮৩২। শান্তিপুর থেকে জয় পেয়েছিলেন বিজেপি প্রার্থী জগন্নাথ সরকার। কিন্তু তিনি সাংসদ পদ ছাড়েননি। তাই এই কেন্দ্রে ভোট হয়। মতুয়াগড়ে বিজেপির সেই শক্তঘাঁটিতেও ফুটেছে ঘাসফুল। তৃণমূল প্রার্থী ব্রজকিশোর গোস্বামী জিতলেন ৬৪ হাজার ৬৭৫ ভোটে। তৃণমূল পেয়েছে ১ লক্ষ ১২ হাজার ৮৭ ভোট। বিজেপির প্রাপ্ত ভোট ৪৭ হাজার ৪১২। সবমিলিয়ে ভোটের ময়দানে বিজেপিকে ‘হোয়াইট ওয়াশ’ করল তৃণমূল। চব্বিশের লোকসভা ভোটের আগে এই হার থেকে কি শিক্ষা নেবে বিজেপি, সেটাই এখন দেখার।  উলটোদিকে এই বিপুল জয় জাতীয় স্তরে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই করতে যে তৃণমূলকে শক্তি জোগাবে তা বলাই বাহুল্য। 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

তেলের ট্যাংকার থেকে উদ্ধার ১৩০ কেজি গাঁজা

Tue Nov 2 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: রাস্তায় চেকিং করছিল নিউ আলিপুরদুয়ার জেলার বীরপাড়া থানার পুলিশ। সব গাড়ির ড্রাইভার নিজের গাড়ির কাগজ দেখিয়ে এবং তল্লাশিতে পুলিশকে সহযোগিতা করছিল। পুলিশ যাওয়ার অনুমতি দেওয়ার পর ড্রাইভার গাড়ি নিজে গন্তব্যের দিকে নিয়ে যায়। এই ভাবেই চলছিল পুলিশের চেকিং। সব গাড়ি এগিয়ে আসলেও […]