ডুয়ার্সে ভাল্লুক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে!

জন দেখেছেন : 23
0 0
পড়তে সময় লাগবে :2 মিনিট, 26 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: চিতাবাঘের আতঙ্ক তো ছিলই। এবার ডুয়ার্সের বিভিন্ন চা বাগানে ভাল্লুকের আতঙ্ক জাঁকিয়ে বসেছে। সম্প্রতি মেটেলির একটি চা বাগানে ভালুকের আক্রমণে মৃত্যু হয় এক যুবকের। এলাকাবাসীর পালটা হামলায় মারা যায় ভাল্লুকটিও।

একই ভাবে গতকাল নাগরাকাটার ভগৎপুর চা বাগানেও ভাল্লুক হানা দেয়। ভাল্লুকটিকে ঘুমপাড়ানি গুলি ছুঁড়ে কাবু করে জঙ্গলে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপরই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন শ্রমিকরা। বন্যপ্রাণ বিভাগ স্পষ্টভাবে জানিয়েছে, অযথা আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। সচেতন থাকতে হবে সকলকে। মাল শহরের পরিবেশপ্রেমী সংগঠন মাউন্টেন ট্রেকার্স ফাউন্ডেশনের স্বরূপ মিত্র জানান, তাঁরা রবিবার সকালে সোনগাছি চা বাগানের একটি এলাকায় জন্তুর পায়ের ছাপ দেখেন। প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে এটা ভাল্লুকের পায়ের ছাপ। বন্যপ্রাণ বিভাগকে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

গরুমারা বন্যপ্রাণ বিভাগের আওতাধীন মালবাজার বন্যপ্রাণ স্কোয়াডের ওয়ার্ডেন দীপেন সুব্বা, পরিবেশপ্রেমী সংগঠন স্পোরের শ্যামাপ্রসাদ পান্ডে, সোনগাছি চা বাগানের নাকাটি ডিভিশনের কুইক রেসপন্স টিমের বিনোদ কুজুর সকলেই ওই চা বাগানে যান। বিভিন্ন এলাকা সরজমিনে ঘুরে দেখেন। দীপেনবাবু বলেছেন, ‘আমরা বাসিন্দা সহ সকলের সঙ্গে কথা বলেছি। গাছে নখের দাগ কিংবা মাটিতে পায়ের ছাপ দেখেও ভাল্লুকের উপস্থিতির নিশ্চিত প্রমাণ মেলেনি। সচেতনতা বাড়াতে বাগানে মাইকিং করা হয়েছে। স্পোরের তরফে শ্যামাপ্রসাদ পান্ডেও সকলকে সচেতন থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

মেয়েকে বাঁচাতে গিয়ে মায়ের মৃত্যু! খুনের অভিযোগ মহিলার পরিবারের

Sun Nov 28 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: মেয়েকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল মায়ের! শনিবার রাতে মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে রাজগঞ্জের ফুলবাড়ি-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের জটিয়াকালি সংলগ্ন জয়দেবভিটা গ্রামে। মৃতার নাম মুক্তা খাতুন (২১)। জানা গিয়েছে, মৃতার একমাত্র মেয়ে ঘরের মধ্যে খেলছিল। পাশেই ছিলেন মা। একরত্তি মেয়ে খেলতে খেলতে আলমারি ধরে টান […]