আর কয়েক ঘন্টা পরই কুড়ি-বিশের বিশ্বকাপে মেগা ম্যাচে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নামছে ভারত

জন দেখেছেন : 16
0 0
পড়তে সময় লাগবে :6 মিনিট, 2 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: আর মাত্র কয়েক ঘণ্টার অপেক্ষা। তারপরই দুবাই ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ২২ গজের মেগা লড়াইয়ে মুখোমুখি হচ্ছে ভারত ও পাকিস্তান। এই মেগা ম্যাচ দিয়েই চলতি কুড়ি-বিশের বিশ্বকাপে অভিযান শুরু করছে চিরশত্রু দুই দেশ।

পরিসংখ্যান ও পরিস্থিতির দিক থেকে বাবর আজমদের থেকে কিছুটা হলেও এগিয়ে রয়েছে বিরাট কোহলি অ্যান্ড কোম্পানি। খেলা শুরুর আগেই শুরু হয়ে গিয়েছে জোর জল্পনা। এবার কি ৬-০ বা ১৩-০ হবে। অতীত পরিসংখ্যান বলছে এখনও পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাঁচবার মুখোমুখি হয়েছে দুই দেশ। আর প্রতিবারই শেষ হাসি হেসেছে ভারত। ওয়ানডে বিশ্বকাপেও ১২ সাক্ষাতে প্রতিবারই জিতেছে ভারত। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত আটবার মুখোমুখি হয়েছে দুই দেশ।

তারমধ্যে সাতবার জিতেছে ভারত। তবে সবথেকে উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, শেষ চার ম্যাচেও ভারতকে হারাতে পারেনি পাকিস্তান। তাই আজ বিশ্বকাপের মঞ্চে অপরাজেয় তকমা ধরে রাখতেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নামছে বিরাট বাহিনী। খাতায় কলমে অনেকটাই এগিয়ে থেকে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়ে এ বারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করছে ভারত। রোহিতদের এতখানি এগিয়ে থাকার কারণ অবশ্যই আইপিএল। এই সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতেই আইপিএল শেষ হওয়ার এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই বিরাট, রোহিতরা বিশ্বকাপ খেলতে নেমে পড়েছেন। ভারতীয় দলের ১৫ জন ক্রিকেটারের এ বারের আইপিএল-এ মোট ম্যাচ খেলার সংখ্যা যেখানে ২০০-র উপর, সেখানে পাকিস্তানের ক্ষেত্রে এই সংখ্যাটা শূন্য।

দলের সকলেই ম্যাচ প্র্যাকটিসের মধ্যেই রয়েছে। আবার ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে শেষ দুই প্রস্তুতি ম্যাচেও জিতেছে ভারত। দু’টো দলই এখনও পর্যন্ত একবার করে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। ২০০৭ সালে ভারত এবং ২০০৯ সালে পাকিস্তান। সব বিভাগেই পাকিস্তানের থেকে এগিয়ে রয়েছে ভারত। ব্যাটিং লাইনআপ, অলরাউন্ডার, পেস ও স্পিন অ্যাটাক ভারতের যথেষ্ট শক্তিশালী। রোহিত শর্মা, কেএল রাহুল, ঋষভ পন্থের মতো ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেওয়ার মতো ব্যাটসম্যান রয়েছেন দলে। আইপিএলে সেই ভাবে রান না পেলেও যেকোন দলের কাছেই বিরাট কোহলি একটা বড় ফ্যাক্টর। তারওপর অধিনায়ক হিসেবে এটাই বিরাটের শেষ বিশ্বকাপ।

তাই ভালো কিছু করতে তিনিও মুখিয়ে থাকবেন। জসপ্রীত বুমরার মতো বোলার রয়েছেন। স্পিনে অশ্বিনের মতো অভিজ্ঞ বোলার থাকার পাশাপাশি রয়েছেন বরুণ চক্রবর্তীর মতো মিস্ট্রি স্পিনার। আর রবীন্দ্র জাদেজার মতো অলরাউন্ডার তো রয়েছেনই। জাদেজা ফ্যাক্টরে ভর করেই অতীতের বহু ম্যাচ জিতেছে ভারত। পাকিস্তানের বিরুদ্ধেও কোহলির অন্যতম সেরা অস্ত্র সেই রবীন্দ্র জাদেজাই। তবে এই ম্যাচে ভারতের একমাত্র দুর্বলতা হলো ষষ্ঠ বোলারের অভাব। যদি হার্দিক পান্ডিয়া বল করতে না পারেন তাহলে ভুগতে হবে ভারতকে। প্রস্তুতি ম্যাচে বিরাটকে বল করতে দেখা গিয়েছে। অনেকেই মনে করছেন ষষ্ঠ বোলার হিসেবে ২-৩ ওভার বল করে দেয়ার কাজটা নিজের হাতেই তুলে নিতে পারেন ক্যাপ্টেন কোহলি। উল্টোদিকে, খুব একটা পিছিয়ে থেকে নামবে না পাকিস্তানও।

ইউএই- এর এই সমস্ত মাঠেই দীর্ঘদিন খেলাটা বাড়তি অ্যাডভান্টেজ দেবে পাকিস্তানকে। অধিনায়ক বাবর আজম দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন। এছাড়াও দলে মহম্মদ রিজওয়ান, শাহিন আফ্রিদি, মহম্মদ হাফিজের মতো তারকারা রয়েছেন। শাহিনের পাশাপাশি বোলিংয়ে মিডিয়াম পেসার হাসান আলি তারকাখচিত ভারতীয় ব্যাটিং লাইনআপের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠতে পারেন। তবে ভালো মানের স্পিনার এবং নিম্ন মানের ফিল্ডিং আজ ভারতের বিরুদ্ধে মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠতে পারে বাবরের। বহুদিন পর ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের রোমাঞ্চকে উপভোগ করতে মুখিয়ে রয়েছে গোটা ক্রিকেট বিশ্ব। ২২ গজে আরও একটা উত্তেজক লড়াই হতে চলেছে, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

আন্তর্জাতিক স্তরের সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থান পেলেন পশ্চিম মেদিনীপুরের অর্চিষা পরাশর

Sun Oct 24 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: কয়েকদিন আগেই মুম্বইয়ে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক স্তরের সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে অবিভক্ত মেদিনীপুর জেলা তথা গোটা বাংলাকে গর্বিত করলেন বছর কুড়ির তরুণী অর্চিষা পরাশর। ইন্টারন্যাশনাল গ্ল্যাম আইকন- ২০২১ সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় দ্বিতীয় স্থান অধিকার করলেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়্গপুর লোকাল থানার অন্তর্গত […]