ইংরাজিতে এমএ পাস করে চায়ের দোকান দিলেন হাবড়ার টুকটুকি

জন দেখেছেন : 27
0 0
পড়তে সময় লাগবে :2 মিনিট, 37 সেকেন্ড

বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: বাবা মুদির দোকান চালান। প্রয়োজনে রিক্সা নিয়ে বেড়িয়ে গেলে মা দোকান দেখাশোনা করেন। এইটুকু জানতে পারলেই বোঝা যায় পারিবারের আর্থিক অবস্থা খুব খারাপ। মেয়ে গত বছর ৬১% নম্বর পেয়ে ইংরাজিতে এমএ পাস করেছেন। পারিবারের এই আর্থিক অবস্থা কোনও মতেই মেনে নিতে পারছিলেন না মেয়ে।

কয়েকটি চাকরির পরীক্ষা দিয়েও সাফল্য না আসায় বেকার বসে থেকে হতাশা যাতে গ্রাস করতে না পারে, তাই চাকরির আশায় বসে না থেকে নিজেই নিজেকে স্বাবলম্বী করার অভিনব পন্থা বেছে নিলেন উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার হাবড়ার টুকটুকি দাস। হাবড়া স্টেশনের নিচে চায়ের দোকান খুলে বসেছেন টুকটুকি। দোকানের নাম, ‘এমএ ইংলিশ চায়ের দোকান’। দোকানের নাম দেখেই এগিয়ে আসছেন অনেকেই। ৫ টাকা কাপ থেকে ৩৫ টাকা কাপ পর্যন্ত বিভিন্ন রকমের চা আছে। টুকটুকির দাবি, তাঁর এই চায়ের দোকান একদিন ব্র্যান্ডে পরিণত হবে। দেশে যখন চাকরির আকাল দেখা দিয়েছে, সেই সময় টুকটুকির উদ্যোগ দেখে ধন্য-ধন্য করছেন এলাকাবাসী।

কিছুদিন আগে মুম্বইয়ের এক শিক্ষিত যুবক নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতার নাম দিয়ে চায়ের দোকান খুলেছিলেন। যা সারা দেশের মানুষের নজর কেড়েছিল। যদিও টুকটুকির এই দোকান চালুর পথে অনেক বাধা ছিল। ঘরের মেয়ে চায়ের দোকান করবে, লোকে কী বলবে! সুতরাং বাবা-মা চাননি। একটা মেয়ে চায়ের দোকান করবে শুনে অনেকেই দোকান ভাড়া দিতে চায়নি। কিন্তু নিজের জেদে অটল থেকে টুকটুকি দাস স্বাবলম্বী হওয়ার রাস্তা নিজেই খুঁজে নিয়েছেন। টুকটুকির এই চায়ের দোকান দেশের শিক্ষিত বেকারের চিত্র আরও একবার সামনে এনে দিল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Next Post

গাজলে ৬ লক্ষ টাকার নিষিদ্ধ শব্দবাজি উদ্ধার

Wed Nov 3 , 2021
বেঙ্গল এক্সপ্রেস নিউজ: কয়েকদিন আগেই দীপাবলিতে সব রকম আতশবাজি নিষিদ্ধ করেছিল কলকাতা হাইকোর্ট। ঠিক তার পরেরদিন আতশবাজি উন্নয়ন সমিতি এই রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে যায়। সুপ্রিম কোর্ট পরিবেশবান্ধব বাজি বিক্রি এবং জ্বালানোর অনুমতি দেয়। পরিবেশবান্ধব আতশবাজি বিক্রির অনুমতি দিলেও নিষিদ্ধ বাজির ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি […]